২১ দিনে ভারত থেকে দেশে ফিরেছেন ৬২৭ যাত্রী


স্টাফ রিপোর্টার,ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থল বন্দর দিয়ে গত ২১ দিনে ভারত থেকে দেশে ফিরেছেন ৬২৭ যাত্রী। তাদের মধ্যে ৬১২ জন বাংলাদেশী নাগরিক ও ১৫ জন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় দূতাবাসে কর্মরত ভারতের নাগরিক। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ডিআইওয়ান) ইমতিয়াজ আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলায় অবস্থিত বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশন থেকে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি) নিয়ে এবং ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আরটিপিসিআর ল্যাবের করোনা টেস্টের সনদ নিয়ে দেশে ফেরার নির্দেশনা দেয় বাংলাদেশ সরকার।
সেই নির্দেশনা মোতাবেক গত ২১ দিনে ৬২৭জন বাংলাদেশে ফিরেছেন। এর মধ্যে সর্বশেষ গতকাল রোববার ২৭জন দেশে ফিরেছেন। ৬২৭ জনের মধ্যে ৬১২ জন বাংলাদেশী নাগরিক ও ১৫ জন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় দূতাবাসে কর্মরত ভারতের নাগরিক।

মোঃ ইমতিয়াজ আহমেদ আরো বলেন, গত ২৬ এপ্রিল থেকে গতকাল রোববার (১৬ মে) পর্যন্ত এসব যাত্রীরা বাংলাদেশে আসেন। অপরদিকে এই সময়ে বাংলাদেশে আটকা পড়া ১৮৫ জন ভারতীয় পাসপোর্টধারী নাগরিকও তাদের নিজ দেশে ফিরে গেছেন।

আখাউড়া স্থল বন্দর পুলিশের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক আবদুল হামিদের বরাত দিয়ে জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইমতিয়াজ আহমেদ আরো বলেন, গত শনিবার ১২ জন যাত্রী বাংলাদেশে ফিরেছেন। তাদের মধ্যে তিন জনকে ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল ও ৯ জনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।
আখাউড়া স্থল বন্দর দিয়ে ফিরে আসা প্রত্যেক যাত্রীকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৭৩ জন যাত্রীকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন সেন্টারে রাখা হয়েছে।

এদিকে ভারত থেকে আসা একজন যাত্রীর করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হওয়ায় তাকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..