স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৭ বছর পর গণকবর সংরক্ষণ

botv নিউজ:

মহান স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৭ বছর পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বড়াইল ইউনিয়নের খারঘর গ্রামের গণকবর সংরক্ষণ করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় “খারঘর গণকবর স্মৃতিসৌধ-৭১” প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসাইন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ জেলার মুক্তিযোদ্ধাসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১৯৭১ সালের ১০ অক্টোবর খারঘর গ্রামে নির্বিচারে গণহত্যাযজ্ঞ চালায় পাকিস্তানি বাহিনী। সেদিন ওই গ্রামের ৪৩ জনকে হত্যা করা হয়। এর মধ্যে ২৩ জনকে খারঘর গ্রামেই গণকবর দেয়া হয়।

দেশ স্বাধীন হওয়ার পর মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত এ গণকবরটি সংরক্ষণ করা হয়নি। গণকবরটি সংরক্ষণের জন্য দীর্ঘদিন ধরেই মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয়রা দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

অবশেষে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদল, জেলা পরিষদ ও জেলা পুলিশের উদ্যোগে খারঘর গ্রামে নির্মিত হয় “খারঘর গণকবর স্মৃতিসৌধ-৭১”।  বৃহস্পতিবার এর আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়।

এদিকে দীর্ঘদিন পর “খারঘর গণকবর স্মৃতিসৌধ-৭১” এর উদ্বোধন হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী ও মুক্তিযোদ্ধারা
এ ব্যাপারে উপজেলার বড়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাকির হোসেন এবং মুক্তিযোদ্ধা মমিনুল হক সুধন বলেন, আমাদের প্রাণের দাবি ছিল গণকবরটি সংরক্ষণ করার। আজ “খারঘর গণকবর স্মৃতিসৌধ-৭১” এর উদ্বোধন হওয়ায় আমরা শান্তি পেলাম।
###

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..