ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লুৎফুল হাই সাচ্চু সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্যে প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

botv নিউজ:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট লুৎফুল হাই সাচ্চুকে নিয়ে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সার্কিট হাউজে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল মান্নানের আগমনে আয়োজিত সূধী সমাবেশে অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদে  বুধবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছে লুৎফুল হাই স্মৃতি পরিষদের নেতৃবৃন্দ।

বুধবার দুপুরে প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন শেষে প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন লুৎফুল হাই স্মৃতি পরিষদের সভাপতি আমানুল হক সেন্টু।
সংবাদ সম্মেলনে আমানুল হক সেন্টু বলেন, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল মান্নান ব্রাহ্মণবাড়িয়া আগমন উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সার্কিট হাউজে আয়োজিত সূধী সমাবেশে প্রয়াত সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট লুৎফুল হাই সাচ্চুকে নিয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-মামুন সরকার অশালীন ও অবমাননাকর বক্তব্য রাখেন। যার কারনে লুৎফুল হাই সাচ্চুর অনুসারীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়টি তাঁরা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে অবহিত করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল আলম এমএসসি, জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র মোঃ হেলাল উদ্দিন, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মিসেস মিনারা আলম, জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহানুর ইসলাম, জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি কাউছার আহমেদ ও মরহুম লুৎফুল হাই সাচ্চুর অনুজ মনোয়ারুল হাই মামুনসহ লুৎফুল হাই সাচ্চু স্মৃতি পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-মামুন সরকার বলেন, সংবাদ সম্মেলনে তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ন মিথ্যা। তিনি প্রয়াত সংসদ সদস্য লুৎফুল হাই সাচ্চু সম্পর্কে কোন ধরনের অশোভন বা অবমাননাকর বক্তব্য দেননি।
###

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরো খবর

ফেসবুকে আমরা..